ব্লগার সাইটের স্পিড বাড়ানোর ৪টি সহজ উপায়

আপনার সাইটের কি খুব সুন্দর ডিজাইন? খুব সুন্দর করে সবকিছু সাজানো গোছানো? এতে কোন লাভ হবে না। কারন আপনার সাইটের লোডিং স্পিড যদি কম হয় বা সাইট লোড হতে যদি সময় বেশি নেয় তাহলে, সুন্দর ডিজাইন বা যত ভালো কন্টেন্টই থাকুক না কেন কোন লাভ হবে না।

আপনার সাইটের লোডিং টাইম যদি ৩ সেকেন্ডের বেশি হয় তাহলে বলা যায় আপনার সাইটের লোডিং স্পিড খুবই স্লো। আমরা যখন গুগলে বা কোন সার্চ ইন্জ্ঞিনে কিছু সার্চ করি, তখন কিন্তু  আমরা সবচেয়ে দ্রুত যে সাইট টা লোড হয় সেই সাইটেই ঢুকি। অনেক সময় হয়ত কোন সাইটের লিংকে ক্লিক করলাম কিন্তু লোড হতে সময় বেশি লাগার কারনে আবার ব্যাক বাটনে ক্লিক করে সার্চ পেইজে ফিরে আসি।
ঠিক একই ভাবে আপনার সাইটের ভিজিটররাও কিন্তু একই কাজ করে। তারাও কিন্তু সাইট লোড হতে সময় বেশি লাগলে ব্যাক বাটনে ক্লিক করে ফিরে যায়। তো আজকের এই পোস্টে দেখাবো কিভাবে আপনার ব্লগার সাইটের স্পিড বাড়াবেন। এবং লোডিং টাইম কমাবেন।

ব্লগার সাইটের স্পিড বাড়ানোর সহজ উপায়

আমি যে মেথড গুলো বলব এগুলো যেকেউ ব্যবহার করে সাইটের স্পিড বাড়াতে পারবে। এরজন্য আপনাকে এক্সপার্ট বা কোডিং জানতে হবে না।

হোম পেইজে পোস্ট কমা দেখানোঃ

সাইটের স্পিড বাড়ানোর অন্যতম কার্যকর একটি উপায় হলো, সাইটের হোম পেইজে কম পোস্ট দেখানো। সাইটের হোম পেইজে যদি কম পোস্ট থাকে তাহলে, ইমেজ বা ছবিও কম থাাকবে যার ফলে সাইটের লোডিং স্পিড আরো বেড়ে যাবে। কম পোস্ট দেখানোর জন্য প্রথমে Settings এ চলে যান। 

এরপর একটু নিচের দিকে স্ক্রল করলে, একটা অপশন পাবেন। Max Posts Shown on Main Page. 

এই অপশানে গিয়ে আপনি ৫-৭ টা করে দিন। অথবা এর থেকে কমও করতে পারেন। পোস্ট যত কম দেখানো হবে স্পিড তত বাড়বে।

অপ্রয়োজনীয় উইজেট রিমুভ করা

এটি আরেকটি কার্যকর উপায় সাইটের লোডিং স্পিড বাড়ানোর। ব্লগার সাইের টেম্পলেটে অনেক সময় অনেক অপ্রয়োজনীয় উইজেট থাকে যা আমাদের কোন কাজে লাগে না। আপনার সাইটের টেমেপ্লেটে যদি এরকম কোন অপ্রয়োজনীয় উইজেট থাকে তাহলে তা রিমুভ করে দিন। তার জন্য আপনাকে Layout অপশনে যেতে হবে। 

ইমেজ রিসাইজ করা

সাইটে যেকোন ইমেজ বা ছবি আপলোড করার আগে যদি তা ভালোভাবে রিসাইজ করে নেন, তবে তা সাইটের স্পিড বাড়তে সাহায্য করবে। চেষ্টা করবেন পোস্টের ভেতর যেসব ছবি যুক্ত করেন তার সাইজ যেন একই হয়। অর্থাৎ আপনার সাইটের যেসব পোস্ট আছে সগুলোর থাম্বনেইলের সাইজ যেন একই হয়। ধরুন একটা থাম্বনেইলের সাইজ দিলেন 1200×720 আবার আরেকটা দিলেন 700×350, তাহলে কিন্তু সাইটের লোডিং হতে সময় বেশি লাগবে।
চেষ্টা করবেন সবগুলার সাইজ এবং এসপেক্ট রেশিও যন সমান হয়।

ইমেজ কম্প্রেস করা

ইমেজ কম্প্রেস সাইের স্পিড কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই পোস্টে বা সাইটে ইমেজ আপলোড করার আগে তা রিসাইজ করার পাশাপাশি কম্প্রেস করে নিবেন। কম্প্রেস করলে ছবির সাইজ কমবে, ফলে লোডিং স্পিড বেড়ে যাবে।

সাইটে আপলোড করার জন্য PNG, WEBP, এসব ফরমেটের ইমেজ ব্যবহার করা ভালো। কারন এগুলো কম্প্রেস করলে ভালো ফল পাওয়া যায়। তাছাড়া WEBP ইমেজ বিশেষ করে ওয়েব পেইজ বা ওয়েবসাইট এর জন্য তৈরি। তাই এসব ছবি খুব দ্রুত লোড হয় এবং কোয়ালিটি কমানো ছাড়াই সাইজ কমানো যায়।

অনলাইনে আপনি ইমেজ কনভার্ট, কম্প্রেস করার অনেক টুল পাবেন। তাছাড়া আপনি ইচ্ছা করলে কম্পিউটারে Photoshop দিয়ে করতে পারেন। গুগলে আপনি Image Compresser, WEBP Image Converter বা PNG Image Converter লিখে সার্চ করলে এসব টুল পেয়ে যাবেন।

Leave a Reply